Image default
স্বাস্থ্য

হাইপার-থাইরয়েড : লক্ষণ ও চিকিৎসা

থাইরয়েড গ্রন্থি যদি প্রয়োজনের বেশি হরমোন উৎপাদন করে ফেলে তবে তাকে হাইপার-থাইরয়েড বা হাইপারথাইরয়ডিজম(Hyperthyroidism) বলে ।

তিনটি গ্রন্থির মিলিত প্রচেষ্টায় হরমোন নির্গমণ কাজ সম্পন্ন হয় । মস্তিস্কের পিটুইটারি গ্রন্থি এবং হাইপোথ্যালামাস গ্রন্থি সেই সাথে থাইরয়েড গ্রন্থি । এই তিনটি গ্রন্থি হরমোন উৎপাদনের জন্য মিলিতভাবে কাজ করে । এখন উক্ত তিনটি গ্রন্থির যে কোন একটি বা একাধিক গ্রন্থি যদি প্রয়োজনের তুলনায় বেশি কাজ করে ফেলে তখন ফল স্বরুপ যতটুকু হরমোন দরকার তার চেয়ে বেশি হরমোন উৎপন্ন হয় । আর তখনই বিপত্তি বাঁধে । যেটাকে হাইপারথাইরয়ডিজম বলা হয় ।

thairoed1-copy.jpg

 

হাইপারথাইরয়ডিজম এর লক্ষণ সমুহ

  • অস্থিরতা বেড়ে যাওয়া ।
  • ঠিকমত ঘুম না হওয়া ।
  • গরম সহ্য না হওয়া ।
  • শরীর অতিরিক্ত ঘামানো ।
  • ত্বক পাতলা হয়ে যাওয়া ।
  • হজমে সমস্যা হওয়া ।
  • চুল দুর্বল ও ভঙ্গুর হয়ে যাওয়া ।
  • ওজন কমে যাওয়া ।
  • ডায়রিয়ার প্রবণতা এবং বমি বমি ভাব ।
  • বাহু এবং উরুর পেশী দুর্বল হয়ে যাওয়া ।
  • গলগণ্ড বা গয়টার তৈরী হওয়া ।
আরো পড়ুন

হাইপো – থাইরয়েড কি : লক্ষণ ও চিকিৎসা ।

চিকিৎসা

হাইপারথাইরয়ডিজম এর তিন ধরনের চিকিৎসা পদ্ধতি রয়েছে । আমরা সংক্ষেপে সে বিষয়ে জানার চেষ্টা করবো ।

১ । অ্যান্টিথাইরয়েড হরমোন :

এটি মুখে খাওয়ার ওষধ পদ্ধতি । বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ডাক্তাররা এই পদ্ধতিতে চিকিৎসা করে থাকেন । তবে বিষয়টি নির্ভর করে রোগির বয়স ও সমস্যার ব্যপ্তির উপর ।

thairoed2.jpg

 

২ । সার্জারি :

হাইপারথাইরয়ডিজম সমস্যা যদি ওষধে ভাল হওয়ার পর্যায়ে না থাকে , তবে ডাক্তার সার্জারি করে সমস্যাগ্রস্থ থাইরয়েড অপসারণ করে থাকেন । তবে এটিও নির্ভর করে রোগির বয়স ও সমস্যার ব্যাপ্তির ওপর ।

৩ । রেডিও থেরাপি :

এই পর্যায়ে রেডিও আয়োডিন থেরাপি দিয়ে সমস্যাগ্রস্থ থাইরয়েড অ্যাবলেশন করা হয় ।

আরো পড়ুন

রক্তস্বল্পতার লক্ষণ, কারণ ও প্রতিকার

ক্যান্সারের ১০ টি সতর্কীকরণ লক্ষণ

Related posts

ওজন কমানোর কিছু ঘরোয়া উপায়

jibondharaa

এন্ডোস্কোপি কি ? এন্ডোস্কোপির নিয়ম

jibondharaa

গাউট বা গেঁটে বাতের কারণ , লক্ষণ ও চিকিৎসা

jibondharaa

Leave a Comment