Image default
স্বাস্থ্য

লিভারের যত্ন : লিভার রোগের উপসর্গ : লিভার রোগের কারণ

লিভার বা যকৃত মানবদেহের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ । লিভার শরীরের বিভিন্ন বিপাকীয় কাজ সমূহ নিয়ন্ত্রণ করে থাকে । এটি থেকে বিভিন্ন হরমোন ও এনজাইম তৈরী হয় এবং লিভারের গুরুত্বপূর্ণ কাজ হচ্ছে রক্ত পরিষ্কার করা ও গ্লকোজ সংরক্ষণ করা । অর্থাৎ লিভার আমাদের বেচে থাকার জন্য অপরিহার্য ।মানবদেহে লিভারের অবস্থান হচ্ছে পেটের ডান পাশের উপরের দিকে বুকের পাঁজড়ের ঠিক নিচে ।

লিভার রোগের উপসর্গ

প্রাথমিক অবস্থায় লিভার রোগের নিদৃষ্ট কোন লক্ষণ বা উপসর্গ দেখা যায় না । তবুও সাধারণভাবে লিভার রোগে যে উপসর্গগুলো দেখা যায় সেগুলো হলো :

livar.jpg
শরীরে লিভারের অবস্থান , ছবি-সংগ্রহীত
১ । খাবারে অনিহা :

ক্ষুধামন্দ্য বা খাবারে অরুচী লিভার রোগের প্রধান একটি উপসর্গ ।

২ । বমি বমি ভাব :

কিছু খেলে বমি বমি ভাব হওয়া কোন ভালো লক্ষণ নয় এটি অনেক সময় লিভার রোগের কারন হতে পারে । ফ্যাটি লিভারের কারনে এমনটা হয়ে থাকে ।

৩ । ত্বকে চুলকানি :

যদি শরীরের চামড়া খুব শুষ্ক হয়ে যায় এবং খোসা উঠতে থাকে তাহলে এটি লিভার রোগের কারন হতে পারে ।

৪ । বাম পাঁজরে ব্যথা :

বাম পাঁজরের একটু নিচে ব্যথা অনুভব হলে সতর্ক হওয়া প্রয়োজন । এটি পিত্তথলিতে সমস্যার কারণে হতে পারে ।

৫ । মল মুত্রের রং পরিবর্তন :

হঠাৎ মল মুত্রের রং পরিবর্তন হলে এটাও লিভার রোগের  উপসর্গ হতে পারে ।

৬ । ওজন কম বেশী হওয়া :

উচ্চতা অনুযায়ী ওজন অতিরিক্ত বেশী বা কম হলেও সেটা লিভার রোগের একটি উপসর্গ ।

আরো পড়ুন

কিডনি সুস্থ্য রাখার সহজ কিছু উপায়

লিভার রোগের কারণ :

১ । ধুমপান  :

ধুমপান লিভারের ক্ষতি করে । তামাকের নিকোটিন লিভারের টিস্যু নষ্টে ভূমিকা রাখে ।

২ । মাদকদ্রব্য গ্রহন :

যেকোন মাদক লিভারের জন্য ক্ষতিকর । মদপানের কারণে লিভার সিরোসিস, ড্যামেজ বা ফ্যাটি লিভারের মতো রোগ হতে পারে ।

৩ । খাবার গ্রহণে অনিয়ম :

নিদ্রিষ্ট সময়ে খাবার গ্রহন না করা , অতিরিক্ত জাঙ্ক ফুড, ফাষ্ট ফুড গ্রহন লিভারের ক্ষতি করে । রান্নায় অতিরিক্ত তেল ব্যবহার, পোড়া তেল ঘুরিয়ে ফিরিয়ে ব্যবহার লিভারের মারাত্মক ক্ষতি করে ।

এছাড়া, ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া অতিরিক্ত ওষধ গ্রহন, দূষিত পানি পান করা, এ্যরোসল বা কীঁটনাশকের মতো বিষাক্ত টক্সিনের শ্বাস নিলে লিভারের ক্ষতি হতে পারে ।

livar6.jpg
সুস্থ লিভার ও অসুস্থ লিভার , ছবি-সংগ্রহীত

লিভার সুস্থ্য রাখবেন যেভাবে :

১ । প্রক্রিয়াজাত খাবার এড়িয়ে চলুন :

বাইরের সব ধরনের প্রক্রিয়াজাত খাবার এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন । অতিরিক্ত জাঙ্ক ফুড, ফাষ্ট ফুড গ্রহন লিভারের ক্ষতি করে । রান্নায় অতিরিক্ত তেল ব্যবহার, পোড়া তেল ঘুরিয়ে ফিরিয়ে ব্যবহার লিভারের মারাত্মক ক্ষতি করে ।

২ । মাদকদ্রব্য পরিহার করুন :

সব প্রকারের মাদকই লিভারের মারাত্মক শত্রু । নিয়মিত মদ্যপানরে ফলে লিভার সিরোসিস এর মতো রোগ হতে পারে । সেই সাথে লিভারে চর্বি জমতে পারে ।

৩ । সুশৃঙ্খল জীবন যাপন করুন :

সময় মতো ঘুম, স্বাস্যকর খাবার গ্রহন এবং নিয়মিত ব্যায়াম সুস্থ্য লিভারের জন্য খুবই জরুরী ।

৪ । হেলদি ফ্যাট গ্রহন করুন :

ফ্যাট দুই ধরনের । একটি স্বাস্থ্যকর অন্যটি ক্ষতিকর । মাছের তেল, অলিভ ওয়েল, ওয়ালনাট জাতীয় খাবারে হেলদি ফ্যাট থাকে । লিভার সুস্থ্য রাখতে নিয়মিত হেলদি ফ্যাট গ্রহন করুন ।

৫ । কফি পান করুন :

নিয়মিত কফি পান করুন । কফির অনেক উপকার রয়েছে । গবেষকরা জানিয়েছেন, নিয়মিত কফি পান করলে লিভার আক্রান্ত হওয়ার ঝুকি অন্তত ১৪ শতাংশ কমে যায় ।

আরো পড়ুন

কোষ্ঠকাঠিন্যর কারন ও প্রতিকার

 

Related posts

ইকোকার্ডিওগ্রাফি কি : কেন করা হয়

jibondharaa

ম্যালেরিয়া কি ? ম্যালেরিয়ার লক্ষণ এবং চিকিৎসা

jibondharaa

ভিটামিন ‘এ ‘ এর উৎস : কোন কোন খাবারে পাওয়া যায়

jibondharaa

Leave a Comment