Image default
স্বাস্থ্য

৭ এপ্রিল ।। বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস

আজ ৭ এপ্রিল, বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস । আজকের এই দিনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল । প্রতিবছর একটি নির্দিষ্ট প্রতিপাদ্য বিষয় নিয়ে আন্তর্জাতিক ও স্থানীয়ভাবে দিবসটি পালন করা হয়ে থাকে । ১৯৫০ সালের ৭ এপ্রিল থেকে বিশ্বজুড়ে নানা কর্মসূচির মাধ্যমে বিশ্ব বাসি দিবসটি পালন করে আসছে ।

বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস ২০২২ এর স্লোগান

২০২২ সালের বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবসের স্লোগান হচ্ছে  “আমাদের গ্রহ, আমাদের স্বাস্থ্য” । এই বছরের স্লোগানটি মানুষ এবং গ্রহকে সুস্থ রাখা এবং সুস্থতার উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ একটি সমাজ গঠনের জন্য একটি আন্দোলনকে উৎসাহিত করার উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করা হয়েছে । বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, প্রতি বছর পরিবেশগত কারণে বিশ্বে ১৩ বিলিয়নেরও বেশি মানুষের মৃত্যু ঘটে । বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস মুলত জলবায়ু সংকট নিয়ে গঠিত, যা মানবতার মুখোমুখি স্বাস্থ্যের জন্য একক বৃহত্তম হুমকি । তাই জলবায়ু সংকটও আসলে স্বাস্থ্য সংকট ।

আরো পড়ুন

ক্যান্সার প্রতিরোধে যে সকল খাবার পরিহার করা জরুরী
বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবসের সূচনা

১৯৪৬ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে জাতিসংঘ অর্থনীতি ও সমাজ পরিষদ আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য বিষয়ে  সম্মেলন ডাকার সিদ্ধান্ত নেয় । ১৯৪৬ সালের জুন এবং জুলাই মাসে আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ।  এই সম্মেলনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সাংগঠনিক আইন গ্রহন করা হয় । ১৯৪৮ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রথম বিশ্ব স্বাস্থ্য সম্মেলনে ৭ এপ্রিল বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস পালনের প্রস্তাব দেওয়া হয় । এবং তা ১৯৫০ সালে কার্যকর হয় । সেই থেকে ৭ এপ্রিল ” বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস ” হিসাবে পালিত হয়ে আসছে ।

বাংলাদেশে যেভাবে দিবসটি পালিত হচ্ছে ।

বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবসে এবারের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘সুরক্ষিত বিশ্ব, নিশ্চিত স্বাস্থ্য’। দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন । বাংলাদেশে এ বছর দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে গৃহীত কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে জাতীয় পর্যায়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান, সেমিনার আয়োজন, স্বাস্থ্য শিক্ষা প্রদর্শনী, জাতীয় পত্রিকায় ক্রোড়পত্র প্রকাশ, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার উদ্যোগে স্বাস্থ্য সমস্যার ওপর আলোচনা অনুষ্ঠানসহ নানা কার্যক্রম ।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বাস্থ্য দিবসে জাতীয় পর্যায়ের অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন । স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আয়োজিত এ অনুষ্ঠান আজ বেলা ১১টায় রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় । এছাড়াও দেশের সব জেলা ও উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তত্ত্বাবধানে স্থানীয় পর্যায়েও বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবসের বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে ।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্ধারিত স্লোগানের আলোকে বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছে দিবসটি । এ উপলক্ষ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য অধিদফতর এবং স্বাস্থ্য বিষয়ে কাজ করে এমন বেসরকারি সংস্থাসমূহ নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে ।

আরো পড়ুন

হজমশক্তি বাড়ানোর উপায় : কি খেলে হজমশক্তি বাড়ে
বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবসে আমাদের করণীয়

২০১২ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরিপ মতে, পৃথিবীতে প্রতিবছর প্রায় এক কোটি ২৬ লাখ মানুষ অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের জন্য মারা যায়; অর্থাৎ প্রতি চারজনে একজনের মৃত্যু ঘটে এ কারণে। এর জন্য দায়ী  বায়ু দুষণ , দুষিত পানি, রাসায়নিক দ্রব্য ইত্যাদি। দুঃখের বিষয় হচ্ছে এসব বস্তু মানুষের শরীরে প্রায় ১০০ প্রকারের রোগ সৃষ্টিতে সক্ষম। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এসব অপমৃত্যু কমিয়ে আনার জন্য বদ্ধপরিকর ।

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা মত দিয়েছেন, বর্তমানে সংক্রামক এবং অসংক্রামক সব ব্যাধির জন্যই জলবায়ু পরিবর্তন দায়ী । একই সাথে জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে আমাদের মানসিক প্রশান্তি যেমন নষ্ট হচ্ছে, তেমন বাড়ছে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা । ফলে দীর্ঘমেয়াদি বিভিন্ন রোগ বাসা বাধছে আমাদের শরীরে । ফলে মানব স্বাস্থ্য ভালো রাখতে হলে আমাদের পৃথিবীর স্বাস্থ্যের দিকে অবশ্যই আরও বেশি নজর দিতে হবে । পৃথিবী ভালো থাকলে, পৃথিবীতে বসবাস করা মানুষসহ অন্যান্য প্রাণী এবং জীববৈচিত্র্যও ভালো থাকবে আশা করা যায় ।

পরিশেষে বলা যায় , নিজের স্বাস্থ্য নিজে সুস্থ্য রাখার জন্য চেষ্টা করাটাই আসল ব্যাপার । সচেতন থাকলে অনেক স্বাস্থ্য বিষয়ক জটিলতা থেকে বাঁচা সম্ভব হয় । এ বিষয়ে সরকার এবং বিশ্বের দায় ও কম নয় ।

Related posts

ভিটামিন সি এর উৎস । শরীরে প্রতিদিন কতটুকু প্রয়োজন

jibondharaa

কোষ্ঠকাঠিন্যর কারন ও প্রতিকার

jibondharaa

হার্ট অ্যাটকের লক্ষণ এবং যাদরে ঝুঁকি বেশি

jibondharaa

Leave a Comment