Image default
স্বাস্থ্য

শীতে পা ফাটা রোধের প্রাকৃতিক উপায়

শীত মৌসুমের সবথেকে যন্ত্রণাদায়ক ও বিরক্তিকর একটি সমস্যা হলো পা ফাটা । আবার কিছু লোক আছেন যাদের সারা বছরই পা ফাটে । এটি আমাদের জন্য অনেক সময় লজ্জার কারন ও হয়ে ওঠে । শীতে পায়ের নিচের ত্বক অনেক বেশি শুষ্ক থাকে । তাই এসময় পায়ের বাড়তি যত্নের প্রয়োজন হয় । তা না হলে পা ফেটে যায় এবং এটি অনেক সময় মারাত্মক আকার ও ধারন করে । অনেকের পা ফেটে রক্ত বের হয় আর দীর্ঘদিন এমন থাকলে ইনফেকশন হতে পারে । পা ফাটা দুর করতে কিছু প্রাকৃতিক উপায় নিয়ে আলোচনা করা হবে আজকের লেখাতে ।

পা ফাটা রোধের উপায় সমুহ :

১ । পেঁয়াজের রস :

পেঁয়াজের রস পা ফাটা রোধ করতে খুবই উপকারী ।  পেঁয়াজে রয়েছে ফসফরাস, দস্তা, ম্যাগনেসিয়াম এবং আয়রন । যা শরীরের ক্ষতিকর টক্সিন বের করে দেয় । এবং রক্ত প্রবাহ  ঠিক রাখে ।  পেঁয়াজের রস পায়ের শুষ্কতা দূর করতে সহায়তা করে । এছাড়া পেঁয়াজে রয়েছে ভিটামিন এ, সি এবং ই । যা ত্বককে প্রাকৃতিকভাবে কোমল রাখে ।

আরো পড়ুন

শীতে ত্বকের বাড়তি যত্ন

ব্যবহার পদ্ধতি :

পেঁয়াজ ব্লেন্ড করে রস বানিয়ে নিন । এবার এর মধ্যে এক চামচ মধু ও অলিভ ওয়েল মিশিয়ে নিন । পায়ের ফাটা স্থানে এটি ম্যাসাজ করুন ।  ২০ থেকে ২৫ মিনিট ম্যাসাজ করে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে পা ধুয়ে নিন । অলিভ ওয়েল বা মধু যেকোন একটা ব্যবহার করলেও ফল পাবেন । এভাবে এক সপ্তাহ ব্যবহার করলে পা ফাটা দুর হবে । এটি পায়ের ফাটা দাগ ও দুর করে ।

২ । গ্লিসারিন ও গোলাপজল :

শীতে ত্বকের রুক্ষতা দুর করতে অনেকেই গ্লিসারিন ব্যবহার করেন । এটি আমাদের ত্বক কোমল রাখে । পা ফাটা রোধে গ্লিসারিন ও গোলাপ জলের মিশ্রণ দারুন কাজ করে ।  ১ টেবিল চামচ গ্লিসারিন, ১ চা চামচ গোলাপজল ও কয়েক ফোঁটা লেবুর রস একসাথে মিশিয়ে পায়ের ফাটা স্থানে লাগিয়ে রাখুন সারারাত । এটি পা ফাটা দুর কারার সাথে ব্যাথাও কমাবে । মিশ্রণটি একটু আঠালো  হবে তাই সুতির মোজা ব্যবহার করতে পারেন ।  সকালে উঠে হালকা গরম পানিতে পা ধুয়ে লোশন লাগিয়ে নিন ।

৩ । ফুট বাথ :

রাতে ঘুমানোর আগে কুসুম গরম পানির মধ্যে শ্যাম্পু দিয়ে এর মধ্যে পা ১৫-২০ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন । এরপর পা ভাল করে ঘসে ধুয়ে ফেলুন । পা ভালো করে মুছে অ্যালোভেরা জেলঅলিভ অয়েলের একটা মিশ্রণ তৈরি করে পুরো পায়ে সুন্দর ভাবে লাগিয়ে নিন । এই ফুট বাথটি কয়েক দিন নিলে আপনার পা ফাটা পুরোপুরি দুর হবে ।

৪ । মোম ও সরিষার তেল :

আমরা যে মোমবাতি ব্যবহার করি তার মোম কিন্তু আমাদের ত্বকের জন্য অনেক উপকারি ।  মোমবাতির গলানো মোমের সাথে কিছুটা সরিষার তেল মিশিয়ে পায়ের ফাটা স্থানে লাগিয়ে সারা রাত রেখে দিন । এই মিশ্রণ টি পা ফাটা দুর করতে দারুন কার্যকরী ।

৫ । ই ক্যাপসুল ও পেট্রোলিয়াম জেলি :

কয়েকটি ভিটামিন ই ক্যাপসুল থেকে তেলটা বের করে নিন। তার পর পেট্রোলিয়াম জেলির সাথে এটি মিশিয়ে পায়ে মাখুন ।  রাতে দিকে এই মিশ্রণটি লাগিয়ে মোজা পরে ঘুমান । এটি আপনার পা নরম রাখবে ফলে পা ফেটে যাবে না ।

৬ । ভ্যাসলিন ও লেবুর রস :

ভ্যাসলিনের সাথে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে পায়ের ফাটা স্থানে ম্যাসাজ করুন ।  এই মিশ্রণটি আপনার পায়ের ফাটা স্থান শোষণ করে নরম রাখবে । এবং এর উপকারি গুণ পা ফাটা দ্রুত রোধ করবে ।

এছাড়া  পা ফাটা সমস্যা সমাধানে  পায়ে তিলের তেল মাখতে পারেন । এটি পা ফাটা দুর করতে  দারুণ কার্যকরী । শীতের যন্ত্রণাদায়ক সমস্যা পা ফাটা রোধ করতে কিছু বাড়তি যত্নের কথা আলোচনা করা হলো । এগুলো মেনে চললে আপনারা এই বিরক্তিকর সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন বলে আশা করা যায় ।

আরো পড়ুন

শীতে শিশুর যত্ন ও পরিচর্যা

Related posts

ভিটামিন ডি ঘাটতিজনিত লক্ষণ : ভিটামিন ডি এর উৎস

jibondharaa

ভিটামিন ‘এ ‘ এর উৎস : কোন কোন খাবারে পাওয়া যায়

jibondharaa

ক্যান্সারের ১০ টি সতর্কীকরণ লক্ষণ

jibondharaa

Leave a Comment