Image default
পুষ্টি

ডাবের পানির উপকারীতা : ডাবের পানি খাওয়া কেন প্রয়োজন

ডাবের পানির উপকারীতা

ডাবের পানি অত্যন্ত উপকারী ও জনপ্রিয় একটি পানীয় । ডাবের পানিতে উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যামাইনো অ্যাসিড, ভিটামিন বি কমপ্লেক্স, ভিটামিন সি, আয়রন, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, মেঙ্গানিজ এবং জিঙ্ক নানাভাবে শরীরে গঠনে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে । সারাদিনের ব্যস্ততায় পথ চলতে শরীরে ঘামের সঙ্গে প্রয়োজনীয় পানি বেরিয়ে যায়। এতে শরীর নিস্তেজ হয়ে আসে। এমন পরিস্থিতিতে স্বস্তি এনে দিতে পারে ডাবের পানি।একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে শুধু গরমকাল নয়, সারা বছর যদি নিয়ম করে ডাবের পানি খাওয়া যায়, তাহলে একাধিক রোগ শরীরের ধারে কাছেও ঘেঁষতে পারে না।

এবার ডাবের পানির উপকারীতাসমূহ জেনে নেয়া যাক :

১ । ত্বক সুন্দর ও সুস্থ রাখে :
DAB-3.jpg
বিক্রয়ের জন্য প্রস্তুতকৃত ডাব, ছবি – সংগ্রহীত

ডাবের পানি হলো প্রকৃতিক টোনার, যা ত্বককে সংক্রমণ প্রতিরোধের পাশাপাশি সার্বিকভাবে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। সেই সাথে ব্রণের প্রকোপ কমাতেও এই প্রাকৃতিক উপাদানটি সাহায্য করে থাকে। ডাবের পানিতে আছে অ্যান্টিফাঙ্গাল ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ। এছাড়া ডাবের পানি ত্বকের অতিরিক্ত তেলকে দূর করতে ময়েশ্চারাইজার হিসেবেও কাজ করে।

২ । রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ :

ডাবের পানিতে উপস্থিত ভিটামিন সি, পটাশিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়াম রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে থাকে । পটাশিয়াম শরীরে লবনের ভারসাম্য ঠিক রাখার মধ্যে দিয়ে ব্লাড প্রেসারকে স্বাভাবিক রাখে । তাই উচ্চরক্তচাপে ভোগা রোগিরা নিয়মিত ডাবের পানি খেতে পারেন ।

৩ । অতিরিক্ত ওজন কমায় :
DAB-2.jpg
কচি ডাব, ছবি – সংগ্রহীত

ডাবের পানি শরীরের অতিরিক্ত মেদ কমাতে সাহায্য করে ।ডাবের পানি খেলে দীর্ঘ সময় পেট ভরা থাকে এবং ক্ষুধার প্রবণতা কমে আসে। ফলে কম খাওয়া হয়। এতে ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে। ডাবের পানিতে উপস্থিত বেশ কিছু উপকারি এনজাইম হজম ক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি মেটাবলিজমের উন্নতিতেও সাহায্য করে থাকে।

৪ । শরীরে পানির ঘাটতি রোধ করে :

ডাবের পানি তাৎক্ষণিকভাবে শরীরে প্রশান্তি দেয়। শরীরে পানির অভাব পূরণ করতে ও খনিজ পদার্থের ভারসাম্য রক্ষা করতে সাহায্য করে। এছাড়া এতে উপস্থিত ইলেকট্রোলাইট কম্পোজিশান ডায়ারিয়া, বমি এবং অতিরিক্ত ঘামের পর শরীরে ভিতরে খনিজের ঘাটতি মেটাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

৫ । রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে :

ডাবের পানিতে উপস্থিত অ্যান্টি-ভাইরাল এবং অ্যান্টি-ব্য়াকটেরিয়াল প্রপাটিজ নানাবিধ সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। রাইবোফ্লবিন, নিয়াসিন, থিয়ামিন এবং পাইরিডোক্সিনের মতো উপকারি উপদানে ভরপুর ডাবের পানি প্রতিদিন পান করলে শরীরের শক্তি এতটা বৃদ্ধি পায় যে জীবাণুরা কোন ভাবে ক্ষতি করার সুযোগ পায় না ।

৬ । হার্ট ভালো রাখে :

ডাবের পানিতে পটাশিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম থাকে, যা হৃৎপিণ্ডের কার্যক্রম ঠিক রাখে এবং হৃৎপিণ্ডের সুস্থতা বজায় রাখতে সাহায্য করে। শরীরে বাজে কোলেস্টেরল বা এল ডি এল-এর পরিমাণ কমিয়ে হার্টের স্বাস্থ্যের উন্নতিতে ডাবের পানির কোনো বিকল্প হয় না বললেই চলে।

৭ । ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে :
DAB-4.jpg
ছবি – সংগ্রহীত

ডাবের পানিতে কোনো চর্বি নেই, বরং এটি শরীরের অতিরিক্ত চিনি শোষণ করে। ফলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকে।২০১২ সালে হওয়া জার্নাল ফুড অ্যান্ড ফাংশন স্টাডিসে দেখা গিয়েছিল ডাবের পানিতে থাকা অ্যামাইনো অ্যাসিড এবং ডায়াটারি ফাইবার ইনসুলিনের কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। ফলে স্বাভাবিকভাবেই ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে চলে আসে।

৮ । হাড় ভালো রাখে :

হাড়কে মজবুত রাখার জন্য দরকার ক্যালসিয়াম সহ আরো অনেক পুষ্টিগুণ। ডাবের পানিতে যে ক্যালসিয়াম আছে তা হাড়ের জন্য একটি অতি প্রয়োজনীয় উপাদান। এবং রয়েছে ম্যাগনেসিয়াম , যা হাড়কে ভালো রাখতে সাহায্য করে।

 এছাড়া ডাবের পানিতে প্রাকৃতিক এনজাইম থাকে, যা পাকস্থলীর বিভিন্ন সমস্যা, যেমন ডায়রিয়া, কোষ্ঠকাঠিন্য ইত্যাদি দূর করতে সাহায্য করে। ডাবের পানিতে অ্যান্টি-এজিং প্রপার্টিস থাকে। ফলে ত্বকের দাগ ও বলিরেখা দূর করে এবং ত্বককে সতেজ রাখতে সাহায্য করে। ডাবের পানিতে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার থাকায় কোষ্ঠকাঠিন্যের হাত থেকে রেহাই পাওয়া যায়।

আরো পড়ুন

কামরাঙ্গা খাওয়ার উপকারীতা ও সতর্কতা

কাগজি লেবুর পুষ্টিগুণ ও ১০টি উপকারীতা

Related posts

নিয়মিত বেদানা খাওয়ার উপকারীতা

jibondharaa

পাঁকা কলার উপকারীতা ।। প্রতিদিন কেন কলা খাবেন

jibondharaa

আমড়ার পুষ্টিগুণ : আমড়া থেকে যে উপকার পাওয়া যায়

jibondharaa

Leave a Comment