Image default
জীবনী

উইলিয়াম শেকসপিয়ারের জীবনী

উইলিয়াম শেক্সপিয়ার ছিলেন একজন ইংরেজ কবি ও নাট্যকার। শেক্সপিয়ারকে ইংরেজি ভাষার সর্বশ্রেষ্ঠ সাহিত্যিক মনে করা হয় । তিনি ছিলেন ইংল্যান্ডের জাতীয় কবি । উইলিয়াম শেক্সপিয়ারকে বলা হউ ‘বার্ড অব অ্যাভন’বা ‘অ্যাভনের চারণকবি’। উইলিয়াম শেক্সপিয়ার ৩৭ টি নাটক, ১৫৪টি সনেট, তিনটি দীর্ঘ আখ্যানকবিতা এবং আরও বেশ কয়েকটি কবিতা রচনা করেছেন । তার নাটক বিশ্বের প্রায় প্রতিটি প্রধান ভাষায় অনূদিত হয়েছে । এবং অপর যে কোনো নাট্যকারের রচিত নাটকের তুলনায় অধিকবার মঞ্চস্থ হয়েছে ।

উইলিয়াম শেকসপিয়ারের জন্ম ও পরিচয়

উইলিয়াম শেক্সপিয়ারের জন্মগ্রহণ করেন ১৫৬৪ সালের এপ্রিল মাসের ২৩, মতান্তরে ২৬ তারিখ । মতান্তরে ২৩ তারিখ স্ট্রাটফোর্ফ,আপন অ্যাভনে । উইলিয়াম শেক্সপিয়ারের বাবার নাম ছিল জন শেক্সপিয়ার এবং মায়ের নাম ছিল মেরি আরডেন শেক্সপিয়ার। উইলিয়াম শেক্সপিয়ার তার বাবা-মায়ের চতুর্থ সন্তান ।

উইলিয়াম শেক্সপিয়ারের পারিবারিক জীবন

উইলিয়াম শেক্সপিয়ার ১৮ বছর বয়সে  অ্যানি হ্যাথাওয়ে নামের ২৬ বছরের এক নারীকে বিয়ে করেন । অ্যানির গর্ভে শেক্সপিয়ারের তিনটি সন্তান জন্ম লাভ করে । তারা হলেন সুসান, হ্যামনেট ও জুডিথ । হ্যামনেট ও জুডিথ ছিলেন জমজ ।

উইলিয়াম শেক্সপিয়রের সাহিত্য জীবন

উইলিয়াম শেক্সপিয়ার ৩৭ টি নাটক, ১৫৪টি সনেট, তিনটি দীর্ঘ আখ্যানকবিতা এবং আরও বেশ কয়েকটি কবিতা রচনা করেছেন । শেক্সপিয়ারের  রচনাগুলির অধিকাংশই মঞ্চস্থ হয়েছিল ১৫৮৯ থেকে ১৬১৩ সালের মধ্যবর্তী সময়ে । তাঁর প্রথম দিকের রচনাগুলি মূলত মিলনান্তক ও ঐতিহাসিক নাটক ছিল । এরপর ১৬০৮ সাল পর্যন্ত তিনি কয়েকটি বিয়োগান্ত নাটক রচনা করেন । তাঁর রচিত হ্যামলেট, কিং লিয়ার ও ম্যাকবেথ ইংরেজি ভাষার শ্রেষ্ঠ সাহিত্যকীর্তি । জীবনের শেষ পর্বে তিনি ট্র্যাজিকমেডি রচনায় আত্মনিয়োগ করেন । তার এই রচনাগুলি রোম্যান্স নামেও পরিচিত ।

আরো পড়ুন

মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সংক্ষিপ্ত জীবনী

যদিও তাঁর সময়কালে শেক্সপিয়ার একজন সম্মানিত কবি ও নাট্যকার ছিলেন, কিন্তু মৃত্যুর পর তাঁর খ্যাতি হ্রাস পেয়েছিল। ঊনবিংশ শতাব্দীতে তিনি আবার খ্যাতির শীর্ষে ওঠেন । আজও তার নাটকগুলি অত্যন্ত জনপ্রিয় ও বহুচর্চিত । সারা বিশ্বের নানা স্থানের সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে নানা আঙ্গিকে এই নাটকগুলি মঞ্চস্থ হয়ে থাকে।

উইলিয়াম শেক্সপিয়ারের সাহিত্যকর্মের তালিকা

মিলনান্তক নাটক বা কমেডি

১. অল’স ওয়েল দ্যাট এন্ডস ওয়েল

২. অ্যাজ ইউ লাইক ইট

৩. দ্য কমেডি অব এররস

৪. লভ’স লেবার’স লস্ট

৫. মেজার ফর মেজার

৬. দ্য মার্চেন্ট অব ভেনিস

৭. দ্য মেরি ওয়াইভস অব উইন্ডসর

৮. আ মিডসামার নাইটস ড্রিম

৯. মাচ অ্যাডো অ্যাবাউট নাথিং

১০. পেরিক্লিস, প্রিন্স অব টায়ার

১১. দ্য টেমিং অব দ্য শ্রিউ

১২. দ্য টেমপেস্ট

১৩. টুয়েলফথ নাইট

১৪. দ্য টু জেন্টলমেন অব ভেরোনা

১৫. দ্য টু নোবল কিনসমেন

১৬. দ্য উইন্টার’স টেল

শেকসপিয়ারের ঐতিহাসিক নাটক

১.  কিং জন

২. রিচার্ড দ্য সেকেন্ড

৩. হেনরি দ্য ফোর্থ, প্রথম ভাগ

৪. হেনরি দ্য ফোর্থ, দ্বিতীয় ভাগ

৫. হেনরি দ্য ফিফথ

৬. হেনরি দ্য সিক্সথ, প্রথম ভাগ

৭. হেনরি দ্য সিক্সথ, দ্বিতীয় ভাগ

৮. হেনরি দ্য সিক্সথ, তৃতীয় ভাগ

৯. রিচার্ড দ্য থার্ড

১০. হেনরি দি এইটথ

উইলিয়াম শেক্সপিয়ারের বিয়োগান্তক নাটক বা ট্রাজেডি

১. রোমিও অ্যান্ড জুলিয়েট

২. কোরিওলেনাস

৩. টাইটাস অ্যান্ড্রোনিকাস

৪. জুলিয়াস সিজার

৫. ম্যাকবেথ

৬. হ্যামলেট

৭. ট্রইলাস অ্যান্ড ক্রেসিডা

৮. কিং লিয়ার

৯. ওথেলো

১০. অ্যান্টনি অ্যান্ড ক্লিওপেট্রা

১১. সিম্বেলাইন

১২. টাইমন অব অ্যাথেন্স (অসমাপ্ত ট্রাজেডি)

উইলিয়াম শেকসপিয়ারের কবিতা

১. শেক্সপিয়ারের সনেট

২. ভেনাস অ্যান্ড অ্যাডোনিস

৩. দ্য রেপ অব লুক্রেসি

৪. দ্য প্যাশনেট পিলগ্রিম

৫. দ্য ফিনিক্স অ্যান্ড দ্য টার্টল

৬. আ লাভার’স কমপ্লেইন্ট

আরো পড়ুন

কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সংক্ষিপ্ত জীবনী
বাংলা সাহিত্যে উইলিয়াম শেকসপিয়ারের প্রভাব

উইলিয়াম শেক্সপিয়র রচিত ‘কমেডি অফ এররস্’ অবলম্বনে ১৮৬৯ সালে ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর রচনা করেন বাংলা গ্রন্থ ‘ভ্রান্তিবিলাস । উল্লেখ্য, শোভাবাজার রাজবাড়িতে আনন্দকৃষ্ণ বসুর কাছে তিনি শেক্সপিয়ারের পাঠ নেন ।  প্রচলিত আছে, মাত্র পনেরো দিনে তিনি ‘কমেডি অফ এরর’-এর এই ভাবানুবাদটি রচনা করেছিলেন।

উইলিয়াম শেক্সপিয়ারের কিছু গুরুত্বপূর্ণ উক্তি

১. ভালোর প্রাচুর্য খারাপে পরিবর্তন হয়ে যায়।

২. উচ্চাকাঙ্ক্ষা কঠিন জিনিস দ্বারা নির্মিত হওয়া উচিত।

৩. এই পৃথিবী একটি মঞ্চ, আর সকল পুরুষ ও মহিলা হল অভিনেতা: তারা আসে এবং যায়; এবং একজন ব্যক্তি তার জীবনে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করে।

৪. একজন মুর্খ নিজেকে বুদ্ধিমান মনে করে, কিন্তু একজন বুদ্ধিমান ব্যক্তি নিজেকে মুর্খ মনে করে।

৫. মহত্ত্ব থেকে আতঙ্কিত হবেন না: কিছু লোক মহান জন্ম নেয়, কিছু লোক মহত্ত্ব অর্জন করে, আর কিছু লোকের উপর মহত্ত্ব চাপিয়ে দেয়া হয়।

৬. যখন সে বাহাদুর ছিল আমি তার সম্মান করেছি। কিন্তু যখন সে উচ্চাকাঙ্ক্ষী হলো তো আমি তাকে হত্যা করে দিলাম।

৭. যেমন দুষ্টু বাচ্চাদের জন্য মাছি হয়, ঠিক তেমনি দেবতাদের জন্য আমরা, তারা নিজের মনোরঞ্জনের জন্য আমাদের মারে।

৮. এক মিনিট দেরিতে আসার থেকে ভালো তিন ঘন্টা আগে আসুন।

৯. সংক্ষিপ্ততা হলো বুদ্ধির আত্মা।

১০.  মানুষ মানুষই হয়, যে সবচেয়ে ভালো হয় সেও অনেক সময় এইটা ভুলে যায় ।

১১. কিন্তু ওহে,  অপরের চোখ দিয়ে খুশি দেখা কতটা তিত হয়।

১২. ভীতু নিজের মৃত্যুর আগে বহুবার মরে; বাহাদুর মৃত্যুর স্বাদ কখনোই না শুধু একবারই চাখে।

১৩. মৃত্যু একটি ভয়ানক জিনিস।

১৪. সকলকেই নিজের আচরণের পরিণাম ধৈর্য্য পূর্বক সহ্য করা উচিত।

১৫. প্রত্যাশা হল সমস্ত মর্মবেদনার মূল।

১৬. মাছ জলে থাকে, যেমন মানুষ ভূমিতে থাকে; বড় ছোটদের খেয়ে নেয়।

১৭. শুনুন সবার কিন্তু বলুন মাত্র কয়েকজন কে।

১৮. ঈশ্বর তোমাকে একটি মুখমণ্ডল দিয়েছে, আর তুমি তাকে নিজের জন্য অন্যরকম করে নিচ্ছ।

১৯. নরক এখন খালি আছে আর সমস্ত শয়তান এখানে আছে।

২০. একটা ছোটো মোমবাতির প্রকাশ কতদূর পর্যন্ত যায়, ঠিক তেমনি এই দুষ্টু পৃথিবীতে একটা সৎকর্ম উজ্জ্বল হয়ে থাকে।

২১. সর্প দন্তের তুলনায় অকৃতজ্ঞ সন্তান তীক্ষ্ণ হয়।

২২. সে কত ভালো ভাবে পড়েছে, পড়ার বিরুদ্ধে আলোচনা করার জন্য।

২৩. আমি আমার উত্তরে আপনাকে সন্তুষ্ট করার জন্য বাধ্য নই।

২৪. আমি বলছি যে ওখানে অন্ধকার নেই বরং অজ্ঞাত আছে।

২৫. আমার মনে হয় ফ্যাশন বেশি বস্ত্র নষ্ট করে মানুষের থেকে।

২৬. আমি সময় নষ্ট করেছি, আর এখন সময় আমাকে নষ্ট করছে।

২৭. আমি প্রতিটি সেই মানুষের প্রশংসা করব যে আমার প্রশংসা করবে।

২৮. যদি করা অতটাই সহজ হতো যতটা জানা কী করলে ভালো হয়, তাহলে শবগৃহ গিরিজাঘর হতো, আর গরীবের কুটির হতো মহল।

২৯. মিথ্যে লড়াই এর মধ্যে সত্য বীরত্ব থাকে না।

৩০. সময়ের সাথে যাকে আমরা প্রায়ই ভয় পাই তাকে ঘৃণা করতে শুরু করি।

৩১. সেই পিতা হল বুদ্ধিমান যে নিজের সন্তান কে জানে।

৩২. নিজের ভাষার উপর একটু ধ্যান দিন নাহলে আপনি আপনার ভাগ্য খারাপ করে ফেলবেন।

৩৩. আমার মুকুট হল সন্তুষ্টি, এমন মুকুট যার আনন্দ রাজা মহারাজা ও কখনো কখনোই নিতে পারে।

৩৪. না ঋণ নেবে, না ঋন দেবে।

৩৫. কোনো পৈতৃক সম্পত্তি সততার সাথে সমৃদ্ধ থাকে না।

৩৬. গরীব আর সন্তুষ্ট হল ধনী, যথেষ্ট ধনী।

৩৭. যেমন করবে তেমনি বলবে, যেমন বলবে তেমনি করবে।

৩৮. সন্দেহ সর্বদাই দোষীমনে আশ্রয় নেয়।

৩৯. শয়তান তার উদ্দেশ্যের জন্য ধর্মগ্রন্থের সাহায্য নিতে পারে।

৪০. খালি পাত্র সবথেকে বেশি আওয়াজ করে।

৪১. সবথেকে বেশি জরুরি হল নিজ সত্য থাকা।

৪২. একটা মহান কার্য করার জন্য একটু ভুলও করুন।

৪৩. আমরা জানি যে আমরা কি, কিন্তু আমরা এইটা জানি না যে আমরা কি হতে পারি।

৪৪. নামের মধ্যে কী আছে?  যদি আমরা গোলাপ কে অন্য কিছু বলি তবুও তার সুগন্ধ অতটাই মিস্টি থাকবে।

৪৫. যখন একজন পিতা নিজের পুত্রকে দেই, তখন দুজনেই হাসে; যখন একজন পুত্র পিতাকে দেই, তখন দুজনেই কাঁদে।

আরো পড়ুন

কাজী নজরুল ইসলামের  জীবনী
উইলিয়াম শেক্সপিয়ারের মৃত্যু

ইংল্যান্ডের জাতীয় কবি উইলিয়াম শেক্সপিয়ার তাঁর জন্মদিনে ১৬১৬ সালের ২৩ এপ্রিল মৃত্যুবরণ করেন । মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল  মাত্র ৫২ বছর

Related posts

বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং এর জীবনী

jibondharaa

বেগম সুফিয়া কামালের সংক্ষিপ্ত জীবনী

jibondharaa

কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সংক্ষিপ্ত জীবনী

jibondharaa

Leave a Comment